• Wednesday, 24 July 2024

কেরানীগঞ্জ ট্রাফিকের টিএসআই জহিরুলের চাঁদাবাজিতে ব্যাপক সুনাম

কেরানীগঞ্জ ট্রাফিকের টিএসআই জহিরুলের চাঁদাবাজিতে ব্যাপক সুনাম

ঢাকা জেলা কেরানীগঞ্জ ট্রাফিক টিএসআই জহিরুল ইসলামের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ গাড়ির মালিক ও চালক।
ঢাকা-মাওয়া হাইওয়ে আব্দুল্লাহপুর ট্রাফিক বক্সের সামনে প্রতিনিয়ত অবিরাম চাঁদাবাজির শিকার হচ্ছেন সিএনজি, অটোরিকশা, কাভার্ভ ভ্যান, মালবাহী ট্রাকের মালিক ও চালকগণ।
৯ জুলাই, মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে ২ টা পর্যন্ত সরে জমিনে দেখা যায়, ৪০ থেকে ৫০টি সিএনজি, অটোরিকশা, কাভার্ভ ভ্যান, মালবাহী ট্রাকের প্রত্যেকটি থেকে ২০০ -১০০০ টাকা পর্যন্ত চাঁদা আদায় করছেন। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, এভাবে চাঁদা আদায়ের মাধ্যমে মাসে প্রায় দুই থেকে তিন লাখ টাকা আদায় করছেন টিএসআই জহিরুল ইসলাম।

সিএনজি চালক আব্দুর রহিম (৩০) বলেন, এই রাস্তায় চলার জন্য প্রত্যেকদিন আমাদের সিএনজি চালকদের থেকে ২শত-১হাজার টাকা পর্যন্ত নিয়মিত চাঁদা আদায় করেন। এচাঁদার টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। এছাড়াও মামলায় জড়িয়ে দেওয়ার হুমকি প্রদান করেন।

ট্রাক মালিক কাউসার হোসেন অভিযোগ করে জানান, প্রতিনিয়ত জহিরের চাঁদাবাজিতে আমরা অতিষ্ঠ। এভাবে চাঁদাবাজি চলতে থাকলে আমাদের গাড়ি চালানো দুষ্কর হয়ে পড়বে। এচাঁদাবাজি দ্রুত বন্ধ করা হোক। তিনি আরো জানান, প্রতিমাসে এই রাস্তায় যদি গাড়ি চলতে হয় তাহলে মাসহারা দিয়ে চালাতে হবে এমন হুমকিও প্রদান করেন জহিরুল ইসলাম।

এ বিষয় টিএসআই জহিরুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার ৯ জুলাই এই রাস্তায় ১০টি গাড়ি থেকে ৭ হাজার টাকার রেকার বিল আদায় করা হয়েছে। এমনকি বৃন্দাবন দাদারও একটি গাড়ি ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে টি আই (অ্যাডমিন) জাকির হোসেন জানান, এ বিষয়ে আমার কোন বক্তব্য নেই। তবে অনিয়মের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন এটি আমার জানা নেই। আপনি জহিরুলের সাথে কথা বলেন।

Comment / Reply From