• Wednesday, 24 July 2024

সহপাঠীর বাসায় কলেজ শিক্ষার্থী খুন, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

সহপাঠীর বাসায় কলেজ শিক্ষার্থী খুন, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

রাজধানীর মিরপুরে ঢাকা কমার্স কলেজের শিক্ষার্থী জুবায়ের হাসান রাফিত (১৮) হত্যার ঘটনায় তার সহপাঠী রাজিন চৌধুরী ইকবালকে (১৮) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। রাফিত হত্যা মামলার প্রধান আসামি এই রাজিন।


রোববার (৮ জুলাই) রাতে র‌্যাব-৪ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি জিয়াউর রহমান চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানিয়েছেন, রোববার রাতে হবিগঞ্জ থেকে রাজিন চৌধুরী ইকবালকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ বিষয়ে সোমবার (৮ জুলাই) বিস্তারিত জানানো হবে।

এর আগে চাঞ্চল্যকর এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় রাজিন ও তার বাবা ইকবাল হোসাইনকে আসামি করে মামলা করেন নিহত রাফিতের বাবা আবুল বাসার।

জানা যায়, শনিবার (৬ জুলাই) বিকেলে সহপাঠী রাফিতকে কোচিং শেষে বাসায় ডেকে নিয়ে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে বাসার সামনে ফেলে রাখেন রাজিন। ঘটনাটি জানাজানি হলে আত্মগোপনে চলে যায় সে ও তার বাবা।

নিহতের মামা নুরুজ্জামান বলেন, শনিবার সকালে কোচিং করার জন্য রাফিত বাসা থেকে বের হয়। বেলা পেরিয়ে গেলেও সে বাসায় না ফেরায় তাকে বিভিন্ন জায়গা খোঁজাখুঁজি করা হয়। পড়ে সন্ধ্যায় তার কলেজের এক শিক্ষক জানায়, তাকে হত্যা করা হয়েছে। গিয়ে দেখি আমার ভাগিনা রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে।

তিনি জানান, রাফিত মেধাবী ছাত্র। সে এসএসসিতে জিপিএ ৫ পেয়েছিল। তিন মাস আগে কলেজে তাকে ‘ক্লাস ক্যাপ্টেন’ করা হয়। মাসখানেক আগে রাজিন শ্রেণিকক্ষে এক সহপাঠীকে মারধরের চেষ্টা করলে রাফিত তাতে বাধা দেয়। এতে রাজিন ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে ধাক্কা দেয়। রাফিত বিষয়টি কলেজ কর্তৃপক্ষকে জানালে অধ্যক্ষ আবু মাসুদ শিক্ষার্থী রাজিন ও তার বাবা ইকবালকে কলেজে ডেকে বিষয়টি মিটমাট করে দেন। ছেলের উচ্ছৃঙ্খলতা নিয়ে ইকবালকে কথা শোনানো হয় ওই বৈঠকে। এতে বাবা-ছেলে দুজনই রাফিতের ওপর ক্ষুব্ধ হয়। এর জেরেই তাকে বাসায় নিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা তার।

Comment / Reply From