• Monday, 17 June 2024

বানারীপাড়ায় মায়ের যৌন লালসার বলি ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী

বানারীপাড়ায় মায়ের যৌন লালসার বলি ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী

বরিশালের বানারীপাড়ায় মায়ের যৌন লালসার খেসারত দিতে হয়েছে সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে। সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায়, জান্নাতুলের মা শান্তা আক্তার সোমবার ১০ জুন রাতের কোন এক সময় তার পরকীয়া প্রেমিকের হাত ধরে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমায়।
উপজেলার সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড ধারালিয়া গ্রামের বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী নাসির উদ্দিন পাপনের মেয়ে জান্নাতুল (১৩)। সে ধারালিয়া সৈয়দ বজলুল হক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী।
১১ জুন মঙ্গলবার সকালে জান্নাতুল ঘুম থেকে উঠে মাকে ঘরে দেখতে না পেয়ে সম্ভাব্য সকল স্থানে খোঁজ করে মাযের সন্ধান পায়নি। তার মা যে পরপুরুষে আসক্ত তা জান্নাতুল আগে থেকেই জানতো। এবার মনে হয় মা একেবারেই চলে গেছে, লোকজনের কাছে কিভাবে মুখ দেখাবে, এটা ভেবেই হয়তো কোমলমতি মেয়েটি বাথরুমের আড়ার সাথে ওইদিন সকালে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে বলে ধারণা করছেন এলাকাবাসি। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাথরুমের আড়ার সাথে জান্নাতুলকে ঝুলতে দেখে স্থানীয়রা উদ্ধার করে বানারীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেণ।
এলাকাবাসী, স্বজন ও তার বিদ্যাপিঠ সৈয়দ বজলুল হক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আমিনুল ইসলাম লিটন জানান, জান্নাতুলের যে পরকীয়ায় আসক্ত সেটা তারা অনেকবার শুনেছেন। নিহত জান্নাতুলের বাবা সৌদি প্রবাসী নাসির উদ্দিন পাপন মুঠোফোনে জানান, গত কয়েক মাস আগে বেতাল গ্রামের নাঈম নামের এক যুবককে গভীর রাতে নিজ ঘরে স্ত্রী শান্তার সঙ্গে দেখে ফেলে তার মেয়ে। পরে লোকলজ্জার ভয়ে মেয়ে জান্নাতুল বাবার কাছে মাকে ক্ষমা করে দেয়ার জন্য আকুতি জানান।
এ বিষয়ে বানারীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাইনুল ইসলাম জানান, নিহত জান্নাতুলের লাশ ময়না তদন্তের জন্য বরিশাল শেবাচিম মর্গে পাঠানো প্রক্রিয়া চলছে, লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Comment / Reply From

You May Also Like