• Wednesday, 24 July 2024

সহকারী জজ নিয়োগের প্রিলিমিনারি কাল, মানতে হবে যেসব নির্দেশনা

সহকারী জজ নিয়োগের প্রিলিমিনারি কাল, মানতে হবে যেসব নির্দেশনা

সহকারী জজ নিয়োগের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা আগামীকাল শনিবার (৪ মে) বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ১০টা ৫৫ মিনিটের মধ্যে পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। এই সময়ের পর পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশের সব গেট-ফটক বন্ধ থাকবে।


১০০ নম্বরের এই পরীক্ষা রাজধানীর তিনটি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। এই পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীদের জন্য অবশ্য পালনীয় নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশন (বিজেএসসি)।

বিজেএসসির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় বই, ইলেকট্রনিক হাতঘড়ি, মোবাইল ফোন, ক্যালকুলেটর, মানিব্যাগ-ওয়ালেট, তথ্য আদান-প্রদানে ব্যবহারযোগ্য সব ধরনের ডিভাইস, ব্যাগসহ পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশ করা নিষেধ। নিষিদ্ধ সামগ্রীসহ কোনো পরীক্ষার্থী পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। পরীক্ষাকেন্দ্রের গেটে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট-পুলিশের উপস্থিতিতে প্রবেশপত্র এবং মেটাল ডিটেক্টরের সাহায্যে পূর্বে উল্লিখিত নিষিদ্ধ সামগ্রী তল্লাশির মধ্য দিয়ে পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে।

পরীক্ষা চলাকালে কোনো পরীক্ষার্থীর কাছে উল্লিখিত নিষিদ্ধ সামগ্রী পাওয়া গেলে তা বাজেয়াপ্তসহ সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা বাতিল করা হবে।

এদিকে পরীক্ষার সময় প্রয়োজনে যেকোনো পরীক্ষার্থীর ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক অনুভূতিকে সমুন্নত রেখে তার মুখমণ্ডল ও কান প্রদর্শনের জন্য বলা হতে পারে।

সপ্তদশ বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিসে (১৭শ বিজেএস) এবার নিয়োগ পাবেন ১০০ জন। পদসংখ্যা বৃদ্ধি বা হ্রাস পেতে পারে। গত ফেব্রুয়ারিতে সহকারী জজ নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বিজেএস। গত ৩ মার্চ থেকে আবেদন শুরু হয়ে শেষ হয় ৩১ মার্চ।

সব প্রার্থীকে ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পদ্ধতিতে প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অবতীর্ণ হতে হবে। এই পরীক্ষায় মোট ১০০টি এমসিকিউ থাকবে। প্রতিটির মান হবে ১ নম্বর। তবে প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা করা হবে। সব প্রার্থীকেই লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের প্রাক্‌-যোগ্যতা হিসেবে প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। এই পরীক্ষায় ন্যূনতম পাস নম্বর ৫০। প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর কোনো প্রার্থীর লিখিত বা মৌখিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের সঙ্গে যোগ করা হবে না।

এ পরীক্ষা-সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ‘তথ্য, নির্দেশনা ও বিস্তারিত সিলেবাস’ নামের পুস্তিকার প্রথম অধ্যায়ের ১৩ নম্বর অনুচ্ছেদে বর্ণিত আছে।

Comment / Reply From