• Wednesday, 24 July 2024

১৮ পেরিয়ে ১৯তম বর্ষে পদার্পণ করল আরটিভি

১৮ পেরিয়ে ১৯তম বর্ষে পদার্পণ করল আরটিভি

১৮ বছর অতিক্রম করে ১৯তম বর্ষে পদার্পণ করল দেশের জনপ্রিয় স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভি। ‘আজ এবং আগামী’র স্লোগান নিয়ে ২০০৫ সালের ২৬ ডিসেম্বর দেশের পঞ্চম বেসরকারি টেলিভিশন হিসেবে যাত্রা করে গণমানুষের এই চ্যানেলটি।

দীর্ঘ পথপরিক্রমায় আরটিভি দর্শক-শ্রোতাদের ভালো লাগাকে প্রাধান্য দিয়ে সংবাদ ও অনুষ্ঠানকে সাজিয়েছে। বিপরীতে পেয়েছে দর্শকদের ভালোবাসা।

সমৃদ্ধ আগামীর প্রত্যয়ে, দর্শকদের নানান প্রত্যাশা পূরণের চেষ্টায় প্রতি মুহূর্তে এগিয়ে চলেছে চ্যানেলটি। নতুন নতুন অনুষ্ঠান, নাটক, টকশো, রিয়েলিটি শো, অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান আর ভিন্নধারার সংবাদ দিয়ে কয়েক বছরে দর্শকপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে এসেছে আরটিভি।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এমন আনন্দের দিনে শুভেচ্ছা জানান দেশের বিভিন্ন স্তরের শিল্পী, সংস্কৃতিজন, সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও খ্যাতিমানরা। আরটিভির ১৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুভেচ্ছা জানান অনেকে।

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সকল কলাকুশলী, দর্শক ও বিজ্ঞাপন দাতাসহ সকলকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছে আরটিভি কর্তৃপক্ষ। আরটিভির এই দীর্ঘ পথচলায় সঙ্গী হওয়ায় তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ‘গোলটেবিল’, ‘কেমন বাংলাদেশ চাই, ‘আজ পত্রিকায়’ এর মতো জনপ্রিয় টকশো ছাড়াও ‘স্টার অ্যাওয়ার্ড’, ‘আলোকিত নারী পদক’, ‘আরটিভি এসএমসি মনিমিক্স প্রেরণা পদক’-এর মতো অনুষ্ঠান আরটিভিকে নিয়ে গেছে অনন্য উচ্চতায়।

চ্যানেলটিতে নতুন অনুষ্ঠানমালায় যুক্ত হয়েছে ‘ড্যানিশ আরটিভি ইয়াং স্টার’, ‘ফোক স্টেশন’। ইসলামিক ট্যালেন্ট হান্ট খুঁজে নেওয়ার প্ল্যাটফর্মও করেছে চ্যানেলটি। এছাড়া জনপ্রিয়তা পেয়েছে ‘গর্বিত বাবা’ অনুষ্ঠানটিও।

এ ছাড়াও অটিজমবিষয়ক অনুষ্ঠান- হাত বাড়িয়ে দিলাম, ফ্যাশন ও লাইফস্টাইলবিষয়ক অনুষ্ঠান লুকমিসহ আরও নানান অনুষ্ঠান দিয়ে বছরজুড়েই আলোচনায় পরিপূর্ণ ছিল আরটিভি। ঈদসহ ভিন্ন ধর্মের ও বিভিন্ন বিশেষ দিনকে ঘিরে প্রচার করা হয় জনপ্রিয় ও বৈচিত্র্যপূর্ণ নাটক ও অনুষ্ঠানমালা।

মানুষের গান চর্চার দায়িত্বশীলতার জায়গা থেকে আরটিভি আয়োজন করে ‘বেঙ্গল সিমেন্ট বাংলার গায়ে’ নামে নতুন রিয়েলিটি শো, যা ইতোমধ্যেই দর্শক নন্দিত ও গানের জগতে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

এছাড়া কোটি কোটি পাঠকের খবরের চাহিদা মেটাচ্ছে আরটিভি অনলাইন। নিত্যনতুন প্রত্যয়ে ঝলমলে আগামীর জন্য আজকের হয়ে যুগ যুগ জেগে থাকবে আরটিভি।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে আরটিভি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমান বলেন, এমন মাহেন্দ্রক্ষণে আমি দেশ-বিদেশের সব দর্শক, কলাকুশলী, বিজ্ঞাপনদাতা ও কেবল অপারেটরসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা ১৮ বছর অতিক্রম করে ১৯ বর্ষে পদার্পণ করতে যাচ্ছি।

দর্শকদের পছন্দ ও রুচির প্রতি আরটিভি সবসময়ই দায়বদ্ধ ও যত্মশীল। পাশাপাশি জনসচেতনতা ও সুস্থ বিনোদনের সুযোগ সৃষ্টি এবং সত্য তথ্যের নির্মোহ প্রবাহ নিশ্চিতে আরটিভি একাগ্রতার সঙ্গে কাজ করছে। বিভিন্ন শ্রেণী-পেশা ও নানান বয়সী দর্শকদের চাহিদা বিবেচনায় রেখে আরটিভি বহুমাত্রিক অনুষ্ঠান নির্মাণ ও সম্প্রচার করে আসছে। বহুমাত্রিকতা, অভিনবত্ব, তারুণ্য এবং সৃজনশীলতা আরটিভির প্রাণশক্তি। দিনব্যাপী সংবাদ পরিবেশনার পাশাপাশি নিত্য নতুন বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান, ভিন্ন স্বাদের নাটক, সমকালীন ইস্যু নিয়ে টকশো সম্প্রচার করছে আরটিভি।

সারাদেশে ছড়িয়ে থাকা প্রতিশ্রুতিশীল মেধাবীদের জাতির সামনে তুলে ধরার পাশাপাশি স্বদেশী শিল্প-সংস্কৃতি চর্চায় তরুণদের উদ্বুদ্ধ করতে আমরা বছরব্যাপী দেশে এবং বিদেশে নিয়মিত বিভিন্ন রিয়্যালিটি শোর আয়োজন করছি। নিরবে-নিভৃতে যারা সমাজ পরির্তনে বড় অবদান রাখছেন, যারা দেশের উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রাখছেন আরটিভি তাদের স্বীকৃতি প্রদানে সম্মাননা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আসছে।

আপনাদের অকৃত্রিম ভালোবাসা ও পৃষ্ঠপোষকতায় ডিজিটাল সোশ্যাল মিডিয়াতেও আরটিভি শক্ত অবস্থান তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে। আরটিভির ফেসবুক পেজ, আরটিভি ইউটিউব চ্যানেল, আরটিভি ড্রামা ইউটিউব, আরটিভি মিউজিক ইউটিউব এবং আরটিভি অনলাইনের শীর্ষত্ব আপনাদের কারণেই সম্ভব হয়েছে। নাটকে আমরা সবসময় নতুনত্বকে প্রাধান্য দিয়ে যাচ্ছি। নিখাঁদ বিনোদনের জন্য সিনেমা, নাটক, ওয়েবফিল্ম নির্মাণের পাশাপাশি জনসচেতনতায় আরটিভি অবিরাম বহুমুখী অনুষ্ঠান পরিকল্পনা ও নির্মাণ করে চলেছে। বিভিন্ন দিবস ও উৎসবে আরটিভি বৈচিত্র্যময় অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে থাকে। যা আরটিভিকে ভিন্ন মাত্রায় নিয়ে গেছে।

দর্শকদের মনন ও পছন্দ অনুযায়ী অনুষ্ঠান সম্প্রচারে আরটিভির এই নিরন্তর চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। নতুন বছরেও একাধিক চমৎকার আয়োজন নিয়ে আমরা হাজির হবো আপনাদের সামনে। আমি বিশ্বাস করি, সামনের দিনগুলোতেও আপনারা আমাদের পাশে থাকবেন। আরটিভির ১৯ বছরে পদার্পণ উপলক্ষ্যে আমি আবারো সবাইকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। ধন্যবাদ।

 

Comment / Reply From