ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি, সকাল ৭:৫৬
বাংলা বাংলা English English

মঙ্গলবার, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ভোটকেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা খুলে ফেলা হয়েছে: তৈমূর


প্রচারণার শেষ মুহূর্তে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ব্যাপারে আবারো আশঙ্কা প্রকাশ করে বেশকিছু দাবি তুলেছেন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার।

প্রচারণার শেষ দিন শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাত ১০টায় নগরীর মাসদাইর এলাকায় নিজ বাসভবনে জরুরি সংবাদ সম্মেলন করে সাংবাদিকদের কাছে নানা অভিযোগের কথা তুলে ধরেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে তৈমূর আলম বলেন, নির্বাচনে ভীতি সৃষ্টি করতে পুলিশ নানাভাবে হয়রানি করছে। কর্মীদের ধরপাকড় করছে।

তিনি অভিযোগ করেন, সরকার দলীয় প্রার্থীর ভরাডুবির আশঙ্কায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে আমার নির্বাচনী কর্মীদের পুলিশ ধরে নিয়ে যাচ্ছে। এতে ভোটারদের মধ্যে ভয় ও আতঙ্ক সৃষ্টি হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কি না এই নিয়ে আমি শঙ্কা প্রকাশ করছি।

তৈমূরের অভিযোগ, কিছু কিছু স্কুলে, ভোটকেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা খুলে ফেলা হয়েছে। নির্বাচনের জন্য এটা খুবই আতঙ্কের বিষয়। এইসব কেন্দ্রে ভোট সুষ্ঠু হবে কি না এই নিয়ে আমি আশঙ্কায় আছি। অবিলম্বে ওইসব কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরাগুলো পুনরায় স্থাপনের দাবি জানান তিনি।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানকসহ কেন্দ্রীয় নেতাদের ইঙ্গিত করে তৈমূর বলেন, উনারা ভোটার না হয়েও এখানে অবস্থান করে প্রশাসনের ওপর প্রভাব বিস্তার করছেন। ভোটার ছাড়া কেউ নারায়ণগঞ্জে অবস্থান করতে পারবেন না।

নির্বাচন যাতে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয় তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানান তিনি।

পাশাপাশি আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সকল পর্যবেক্ষক দলকে নারায়ণগঞ্জে অবস্থান করে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করার অনুরোধ জানান তৈমূর।