ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি, সকাল ৮:১৮
বাংলা বাংলা English English

মঙ্গলবার, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বরগুনার বেতাগীতে পরিবারের সবাই প্রতিবন্ধী হওয়ায় মানবেতর জীবনযাপন


পরিবারের সবাই প্রতিবন্ধী হওয়ায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন বরগুনার বেতাগী উপজেলার ,হোসনাবাদ ইউনিয়নের, কালু গাজীর ছেলে শাহজালাল মেয়ে সুখী আক্তার। বাড়ি থেকে বের হওয়া মাটির রাস্তাটি চলাচলের অনুপযোগী হওয়ায়। হুইলচেয়ারে চলাফেরা করতে পারছেনা ওই অসহায় পরিবারটি। বর্ষার মৌসুম আসলে ঘরবন্দি থাকতে হয় তাদের। প্রতিবন্ধী শাহজালাল মুজিববর্ষের পেয়েছেন উপহারের ঘর , তার বাবা-মা পেয়েছে সরকারি সহায়তা বয়স্ক ভাতার নাম। এসব পেয়েও আর একটি সুখের প্রত্যাশা থেকে যায় পরিবারটির ।

চলাচলের জন্য শেষ ভরসা হুইল চেয়ার থাকলেও রাস্তাটি সংস্কার না হওয়ায় চরম দূর্ভোগে পড়তে হয়েছে তাদের। সরকারের কাছে ৮ শত মিটার রাস্তা সংস্কারের দাবি জানান তারা। তবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলছেন,এই পরিবারটিকে সার্বিক সহযোগিতার পাশাপাশি পাকা রাস্তা করে দেওয়া হবে। জন্মগতভাবে দুই ভাই বোন প্রতিবন্ধী, লাফিয়ে লাফিয়ে ৮০০মি. রাস্তা পাড়ি দিয়ে যায় স্কুলে। প্রবল ইচ্ছা শক্তি দিয়ে শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে হার মানিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে তারা। বাবা-মা, দুই ভাই বোন নিয়ে তাদের সংসার। শুধুমাত্র নিজেদের জন্য নয়, এলাকার জন্য পাকা রাস্তাটি চান এই প্রতিবন্ধী শাহজালাল ও তার পরিবার। রাস্তা খারাপ হওয়ায় ঘর থেকে বের হতে অনেকটা কষ্ট পোহাতে হচ্ছে দুই ভাই বোনের। বোন সুখী শারীরিক ও বাকপ্রতিবন্ধী। শাহজালাল তিনিও শারীরিক প্রতিবন্ধী।

তাদের সকল স্বপ্ন পূরণ হলেও একটি স্বপ্ন প্রত্যাশায় প্রহর গুনছে । যেটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মানবতার মা দেশরত্ন শেখ হাসিনা কাছে এলাকার প্রায় ৮০০ মিটার যাতায়াতের রাস্তা সংস্কারের দাবি এই প্রতিবন্ধী পরিবারটির। শুধুমাত্র শাহজালাল ও সুখী নয়, সুস্থ মানুষও এ রাস্তা দিয়ে হাঁটতে পারছে না।  বেতাগী উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ মাসুদুর রহমান ফোরকান, বলেছেন, বিগত দিন থেকে তিনি এই পরিবারের খোঁজখবর নিয়েছেন। খুব শীঘ্রই এই পরিবারটিকে পাকা রাস্তা করে দেওয়া হবে ।
বেতাগী উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মোঃ সুহৃদ সালেহীন বলেছেন, প্রতিবন্ধী শাহজালাল এবং সুখী মানবতার জীবন যাপন করছে। রাস্তা দিয়ে হাঁটতে পারছে না । বিষয়টি আপনাদের মাধ্যমে আমি শুনেছি । খুব শীঘ্রই ওই রাস্তাটি করে দেওয়া হবে। তবে কোন আশ্বাস নয় অতি শীগ্রই রাস্তাটি সংস্কারের কার্যকরী ব্যবস্থা নেবেন এই প্রত্যাশা অসহায় পরিবারের