ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ৩:৪৯
বাংলা বাংলা English English

মঙ্গলবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

যে কারণে বিরিয়ানি খাওয়া ছেড়েছেন রশিদ খান


আফগানিস্তানের লেগ স্পিনার রশিদ খান। বয়স মাত্র ২৩ হলেও তার বোলিং ঘূর্ণিতে বিস্মিত পুরো বিশ্ব। তার বোলিংয়ে মুগ্ধ হয়ে ২০১৭ সালে আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ তাকে লুফে নেয় ৪ কোটি রুপির বিনিময়ে। তখন থেকেই নিজের শরীরের ফিটনেসের দিকে নজর রাখতে শুরু করেন আফগান এই স্পিনার। আর সে কারণেই নিজের প্রিয় খাবার বিরিয়ানিকেও বাদ দিয়েছেন তিনি।

রশিদ খান ২০১৫ সাল থেকে আফগানিস্তানের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে দুর্দান্ত বোলিংয়ের কারণে বিশ্বের প্রায় সব ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেটেই খেলে থাকেন এই আফগান তারকা। আর এত সব টুর্নামেন্টে ভালো খেলার জন্য দরকার শরীর ফিট রাখা। সে কারণেই নিজের পছন্দের খাবার বিরিয়ানিকে না বলেছেন তিনি।

ইএসপিএনের ক্রিকেট মান্থলির সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে রশিদ খান নিজের বোলিং, ক্যারিয়ার, জীবনদর্শন নিয়ে কথা বলেন। আর সেখানেই এমন প্রশ্নের উত্তর দেন ডানহাতি এই লেগ স্পিনার। রশিদ খান জানিয়েছেন, কিভাবে নিজের ফিটনেসে নজর দিয়েই বলের গতি বাড়িয়েছেন। আর সে জন্য প্রিয় বিরিয়ানিকে না বলে দিয়েছেন।

রশিদ খানে বলেন, ‘২০১৭ সালের আগে আমার খেলায় তেমন ধারাবাহিকতা ছিল না। এর পেছনে আমার ফিটনেসই দায়ী ছিল। কয়েকটা ম্যাচ খেলার পরই পরের ম্যাচ খেলার জন্য প্রস্তুত ছিল না আমার শরীর। এ কারণেই ভালো পারফরম্যান্স দেখাতে পারছিলাম না। কিন্তু ২০১৭ আইপিএলের পর আমি দেখলাম কীভাবে খেলোয়াড়েরা নিজের যত্ন নিচ্ছেন। এর আগে আমি জিমে যেতাম না বললেই চলে। আফগানিস্তান থেকে এসেছি যেখানে এমন সুযোগ-সুবিধা নেই, তাহলে ফিটনেস কতটা গুরুত্বপূর্ণ, আপনি বুঝবেন কীভাবে। সেখানে ফিটনেসের চেয়ে ক্রিকেটই বেশি গুরুত্ব পায়।’

শরীর ফিট রাখার জন্য নিয়মিত জিমে যান তিনি। আর ২০১৭ সালের পর থেকে নিজের খেলায় ধারাবাহিকতা এসেছে বলে ধারণা করেন এই আফগান স্পিনার। আর সে জন্যই এই তারকা স্পিনার নিয়মিত নিজের শরীরের খেয়াল রাখছেন আর পছন্দের খাবার বিরিয়ানিকেও না বলেছেন।

চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ২৫ অক্টোবর স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের আসর শুরু করবে আফগানিস্তান।