ঢাকা, শুক্রবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি, সকাল ৭:০৯
বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম:
বাংলাদেশকে বিনামূল্যে করোনার আরও টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র এইচএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে অনুপস্থিত ১১৩৪৫, বহিষ্কার ২১ এইচএসসি পরীক্ষা দেওয়া হলো না আদিত্যের স্বাধীনতা সমুন্নত রাখতে নিষ্ঠা ও পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালনে সেনাসদস্যদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহবান ওমিক্রন: বিদেশ ফেরতদের বিষয়ে কঠোর হুশিয়ারি বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা নাট্যোৎসব আগামীকাল থেকে শুরু আগামীকাল ৩০তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস প্রতিবন্ধীদের সার্বিক উন্নয়নে সম্মিলিতভাবে কাজ করার জন্য রাষ্ট্রপতির আহ্বান প্রেক্ষিত পরিকল্পনা ২০৪১ বাস্তবায়নে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা অগ্রসেনা হিসেবে কাজ করে যাবেন : প্রধানমন্ত্রী বিজয় দিবসে সারা দেশের মানুষকে শপথ পঠ করাবেন প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশকে বিনামূল্যে করোনার আরও টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র এইচএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে অনুপস্থিত ১১৩৪৫, বহিষ্কার ২১ এইচএসসি পরীক্ষা দেওয়া হলো না আদিত্যের স্বাধীনতা সমুন্নত রাখতে নিষ্ঠা ও পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালনে সেনাসদস্যদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহবান ওমিক্রন: বিদেশ ফেরতদের বিষয়ে কঠোর হুশিয়ারি বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা নাট্যোৎসব আগামীকাল থেকে শুরু আগামীকাল ৩০তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস প্রতিবন্ধীদের সার্বিক উন্নয়নে সম্মিলিতভাবে কাজ করার জন্য রাষ্ট্রপতির আহ্বান প্রেক্ষিত পরিকল্পনা ২০৪১ বাস্তবায়নে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা অগ্রসেনা হিসেবে কাজ করে যাবেন : প্রধানমন্ত্রী বিজয় দিবসে সারা দেশের মানুষকে শপথ পঠ করাবেন প্রধানমন্ত্রী
শুক্রবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বিষাদময় স্মৃতি ভোলাতে বর্ণিল সাজে এথেন্স


আসছে বড়দিন। উৎসবটিকে ঘিরে গ্রিসের রাজধানী এথেন্স সেজেছে বর্ণিল সাজে। শহরটির জনপ্রিয় সিনটাগমা চত্বর সাজানো হয়েছে জমকালো আলোকসজ্জায়। প্রতি বছর ডিসেম্বর থেকে এথেন্সে বড়দিন উদযাপনের প্রস্তুতি চলে। কিন্তু এ বছর করোনার বিষাদময় স্মৃতি ভুলিয়ে সাধারণের মনে আনন্দ পৌঁছে দিতে সময়ের আগেই বড়দিনের প্রস্তুতি নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

সিনটিগমা চত্বরে ক্রিস্টমাস ট্রিজুড়ে চোখ ধাধানো আলোকসজ্জা। লাল-নীল-হলুদ নানা রঙের আলো। বৈদ্যুতিক বাতির পাশাপাশি কাগজের তৈরি নানা নকশার শৈল্পিক উপকরণে সাজানো হয়েছে গাছগুলো।

চত্বরটির ১৯ কিলোমিটারজুড়ে বিভিন্ন রঙের প্রায় ষাট হাজার বৈদ্যুতিক বাতি। দেখে চোখজুড়ানো অবস্থা। মনোরম এই দৃশ্য দেখতে চত্বরজুড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন ‌এথেন্সবাসী। তুলছেন ছবিও।
প্রতি বছর ডিসেম্বর থেকে বড়দিন উপলক্ষে এথেন্স শহরকে সাজানোর প্রস্তুতি চলে। শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোয় ক্রিস্টমাস ট্রিতে আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হয়। এ বছর ডিসেম্বরের আগেই বড়দিন উদযাপনে সাজানো হয়েছে এথেন্স ও আশপাশের গুরুত্বপূর্ণ স্থান।
গত বছর করোনা মহামারির কারণে বড়দিনের আনন্দ থেকে বঞ্চিত ছিল এথেন্সবাসী। তাই এবছর করোনার বিষাদময় স্মৃতি ভুলিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে আনন্দ ছড়িয়ে দিতে আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

এথেন্সের মেয়র কোসটাস বাকোয়ানিস বলেন, বেশকিছু সময় ধরে আমরা অনেক বাজে সময় পার করছি। এখন সময় এসেছে সবাই মিলে বড়দিন উদযাপনের, একটু আনন্দ করার।
তবে বড়দিন উদযাপনের পাশাপাশি স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যাপারেও জোর দেওয়া হয়েছে। আলোকসজ্জা উপভোগে গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে যাতে দর্শনার্থীদের ভিড় বেশি না হয়, সে বিষয়ে নজর রাখা হবে বলে জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ।
এথেন্স ছাড়াও গ্রিসের অন্তত ৩৫টি শহরের প্রধান চত্বর আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হয়েছে।