ঢাকা, শুক্রবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি, দুপুর ১:০৮
বাংলা বাংলা English English

ফের হেলিকপ্টারে টিকা নিয়ে দুর্গম বড়থলিতে স্বাস্থ্যকর্মীরা

আবারও হেলিকপ্টারে গিয়ে রাঙামাটির বিলাইছড়ি উপজেলার দুর্গম বড়থলি ইউনিয়নে করোনার গণটিকা প্রদান করেছে বিলাইছড়ি উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা।

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একটি হেলিকপ্টারে সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎ এলাকার হেলিপ্যাড থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রশ্মি চাকমার নেতৃত্বে ৫ জন স্বাস্থ্যকর্মী দ্বিতীয় পর্যায়ে এই গণটিকা কার্যক্রমে অংশ নেন।

এ সময় বিলাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান জানান, গত মাসের ১০ আগস্ট আমরা দুর্গম বড়থলি ইউনিয়নে গণটিকাদান কার্যক্রম পরিচালনা করি। তারই ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবার আমরা ঐ এলাকায় গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ প্রদান করার জন্য রওনা করছি।

তিনি আরও জানান, গণটিকার প্রথম ডোজ গ্রহণে ঐ এলাকার জনগণের যে উচ্ছ্বাস সেই দিন আমরা দেখেছি, তা আমাদেরকে আরও বেশি অনুপ্রাণিত করেছে। পাশাপাশি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি বাংলাদেশ বিমান বাহিনীকে, তারা আমাদের হেলিকপ্টার দিয়ে সহযোগিতা করেছে। আর সেনাবাহিনী আমাদের সার্বিক সহযোগিতা করেছে, তাদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানাই।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরও বলেন, আমার দুর্গমের এই সব মানুষকে শুধু টিকাই প্রদান করব না, পাশাপাশি মেডিক্যাল ক্যাম্প করা হবে। যাতে তারা কিছুটা হলেও ওষুধ পেতে পারেন।

বিলাইছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. রশ্মি চাকমা জানান, গত ১০ আগস্ট আমরা ঐ এলাকায় ২৯২ জনকে সিনোফার্মার প্রথম ডোজ দিয়েছিলাম। সেই সাথে ঐ দিন স্বাস্থ্য বিভাগ হতে চিকিৎসা সেবা, ইপিআই কার্যক্রম পরিচালনা করেছি। আজও দুর্গম বড়থলি ইউনিয়নে ২৯২ জনকে টিকা প্রদান করা হবে। এছাড়া সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অধীনে ট্রাইবেল হেলথ কর্মসূচির আওতায় মোবাইল মেডিকেল ক্যাম্পের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবা দেওয়া হবে ঐ এলাকায়।

প্রসঙ্গত, রাঙামাটি থেকে বিলাইছড়ি উপজেলার ফারুয়ায় একদিনের নৌপথ শেষে ঐ ইউনিয়ন থেকে হেঁটে বড়থলি ইউনিয়নে যেতে সময় লাগে কমপক্ষে ৪ দিন। দুর্গম এই ইউনিয়নে সরাসরি নৌপথ ও সড়ক পথে যাওয়ার কোনও ব্যবস্থা নেই।