ঢাকা, শুক্রবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি, সকাল ১১:০৯
বাংলা বাংলা English English

যৌনকর্মীকে খুন

সম্প্রতি রাজধানীর শ্যামলীর রাজ ইন্টারন্যাশনাল হোটেল থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় মোছা. আসমা ওরফে লিমা বেগম (২৫) নামে একজন যৌনকর্মীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত ৮ সেপ্টেম্বর শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ মরদেহটি করে।

এ ঘটনায় মৃত নারীর স্বামী বাদী হয়ে শেরেবাংলা নগর থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের দায়ী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

ওই মামলার পর গত রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) রাতে তেজগাঁও জোনাল টিমের টিম লিডারের নেতৃত্বে একটি টিম সিসি টিভি ফুটেজ ও তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় ক্যান্টনমেন্ট থানাধীন মাটিকাটা এলাকা থেকে প্রধান আসামি মো. খোকন ভুঁইয়াকে (২৮) গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার আসামি আদালতে নিজের দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। অতিরিক্ত অর্থ দাবি করায় ওই যৌনকর্মীকে হত্যা করে পালিয়ে যান তিনি। এরপর নিজের মোবাইল বন্ধ করে আত্মগোপনে চলে যান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম।

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জানান, খোকন এক সময় মধ্যপ্রাচ্যে শ্রমিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। দেশে ফিরে ক্যান্টনমেন্ট এলাকার একটি রেস্তোরাঁয় কাজ নেন। ৭ সেপ্টেম্বর মিরপুরের শেওড়াপাড়া এলাকায় তার এক বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে যান। সেখানে দুজনে বিয়ার পান করেন। এরপর চলে আসেন ফার্মগেট এলাকায়।

রাত ২টার দিকে ফার্মগেট ফুটওভার ব্রিজের ওপর আসমা ওরফে লিমা বেগম ওরফে কবিতা (২৫) নামের এক নারীর সঙ্গে তার কথা হয়। কবিতা তার সঙ্গে রাত কাটাতে সম্মত হলে দুজনে চলে যান শ্যামলীর রাজ ইন্টারন্যাশনাল আবাসিক হোটেলে। তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে হোটেলটির ছয়তলার ৬০২ নম্বর কক্ষে ওঠেন। পরদিন ওই কক্ষেই খাটের সঙ্গে ওড়না দিয়ে হাত বাঁধা অবস্থায় কবিতার মরদেহ পাওয়া যায়।