ঢাকা, শুক্রবার, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৯ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি, রাত ৪:০৩
বাংলা বাংলা English English

বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত জম্মু, নিহত ৪

ভারতের উত্তরাখণ্ডের পর এবার বিপর্যস্ত জম্মুর একাংশ। বুধবার (২৮ জুলাই) সকালে বৃষ্টিতে নাকাল কিশতওয়ার জেলার হনজার গ্রাম। এখন পর্যন্ত সেখানে চারজনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। নিখোঁজ অন্তত ৩০ জন। সব মিলিয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে জম্মুর এ অংশে।

 

সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়েছে, জম্মুর প্রত্যন্ত এলাকা এ কিশতওয়াড়া জেলা। জম্মু থেকে এলাকাটির দূরত্ব অন্তত ২০০ কিলোমিটার। সকালে তুমুল বৃষ্টি শুরু হয় সেখানে। শেষ খবর অনুযায়ী, ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে হনজার গ্রামটি। ভেঙে পড়েছে একাধিক বাড়ি। ভেসে গেছে গবাদি পশু। এখনও অনেকের খবর পাওয়া যায়নি।
পুলিশ সূত্রে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, উদ্ধারকাজ শুরু হয়েছে। চারটি মরদেহ মিলেছে। এখনও নিখোঁজ ২৮ জন। তবে তাদের কাছে পুরো ঘটনার তথ্য নেই বলেও জানিয়েছে জম্মু পুলিশ।
এ প্রসঙ্গে জেলা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ধ্বংসস্তূপ থেকে এখন পর্যন্ত চারটি মহদেহ উদ্ধার হয়েছে। মনে করা হচ্ছে, ওই সময় গ্রামে ৩০ থেকে ৪০ জন উপস্থিত ছিলেন। বাকিদের খোঁজ করা হচ্ছে। দিন কয়েক আগে এই মেঘভাঙা বৃষ্টি জেরে বিপর্যস্ত হয়েছিল উত্তরাখণ্ড। এবার সেই একই ঘটনা ঘটল জম্মুতেও।
এদিকে রোববার (২৫ জুলাই) ভারতের হিমাচল প্রদেশে ভয়াবহ ভূমিধসে অন্তত ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। হতাহতরা সবাই পর্যটক বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

একটি ভিডিওতে দেখা যায় হিমাচল প্রদেশে পাহাড়ের উপর থেকে একের পর এক বিশালাকার পাথর ধসে পড়ে। রোববার (২৫ জুলাই) প্রদেশটির কিন্নরে ভয়াবহ ভূমিধসের পর পাথরগুলো নিচের একটি সেতুতে আচড়ে পড়লে তা ভেঙে পড়ে।
সেতুর পাশে থাকা বেশকয়েকটি গাড়িতেও পাথরের ধাক্কা লাগে। এতে কয়েকটি গাড়ি পুরোপুরি দুমড়ে মুচড়ে যায়। হতাহত হন কয়েকজন পর্যটক।
ভূমিধসের পরপরই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় উদ্ধারকারীদলের সদস্যরা। যোগ দেন পুলিশ সদস্যরাও। পরে হতাহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এ ঘটনায় শোক জানিয়েছেন রাজ্য মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে গভীর শোক জানানোর পাশাপাশি মৃতদের দুই লাখ রুপি ও আহতদের ৫০ হাজার করে রুপি দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
নরেন্দ্র মোদি বলেন, মারাত্মক একটি দুর্ঘটনা ঘটেছে। যারা হতাহত হয়ছেন তারা সবাই পর্যটক। আমাদের সরকার তাদের সব ধরনের সহযোগিতা দেবে।
ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে দেশটির আবহাওয়া দফতর হিমাচল প্রদেশে ভূমিধসের পূর্বাভাস দিয়েছে। একইসঙ্গে জারি করা হয়েছে সতর্কতা।