ঢাকা, বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি, দুপুর ১২:৪১

মালয়েশিয়া থেকে অবৈধদের দেশে পাঠাতে বিশেষ সার্ভিস চালু

মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অবৈধ অভিবাসীদের আরও সহজতর উপায়ে দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করতে আগামী সপ্তাহ থেকে কেএল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ২ -এ ‘রেক্যালিব্রেশন রিটার্ন’ প্রোগ্রামের জন্য বিশেষ কাউন্টার খোলা হচ্ছে।

চলমান রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামের মাধ্যমে তারা ইমিগ্রেশনের পূর্ব অনুমতি ছাড়াই নিজ দেশে ফিরতে পারবেন। স্থানীয় সময় বুধবার (২১ জুলাই) দেশটির অভিবাসন বিভাগের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানান ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক খায়রুল যাইমি দাউদ।

তিনি বলেন, চলমান মূল টার্মিনালের লেভেল থ্রি-তে ‘রেক্যালিব্রেশন রিটার্ন’ কর্মসূচির আওতায় থাকা বিশেষ কাউন্টারগুলোতে প্রতিদিনই অভিবাসীদের সংখ্যা ক্রমবর্ধমান হারে বাড়তে থাকায় অপেক্ষারত অভিবাসীদের স্থান সংকট দেখা দিয়েছে। আর এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আগামী সপ্তাহ থেকে কেএল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর-২ এর লেভেল টুতে আরও ৮টি নতুন বিশেষ কাউন্টার খোলা হবে। যেখানে ৫০০ জন লোকের সেবা নেওয়ার মতো ব্যবস্থা থাকবে।
এছাড়াও মূল টার্মিনালের কার পার্কিংয়ের স্থানে স্বল্পমেয়াদী আরও ২০টি অতিরিক্ত বিশেষ কাউন্টার স্থাপন করা হবে যেখানে একসঙ্গে ৮৫০ থেকে ১ হাজার লোকের সেবা নেওয়ার মতো জায়গা হবে বলে তিনি আশা করছেন।
এদিকে, মালয়েশিয়ার শিখ অ্যাসোসিয়েশন নামে একটি এনজিও জানিয়েছে, যাত্রীদের ফ্লাইটের অন্তত ছয় ঘণ্টা আগে ইমিগ্রেশন কাউন্টারে উপস্থিত থাকার কথা বলা হলেও যাত্রীরা ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্টে আবেদনপ্রক্রিয়ার লাইনে দাঁড়াতে শত শত অভিবাসী জ্যামে আটকা পড়ে অনেকে তাদের ফ্লাইট মিস করছে এবং পরবর্তী ফ্লাইট ধরার জন্য অপেক্ষারত অনেকে টাকার অভাবে খাদ্য সংকটে পড়েছে।
সংস্থাটি ১৫ জুলাই থেকে প্রতিদিন প্রায় ১ হাজার লোকের খাবারের প্যাক বিতরণ করে আসছে। কিন্তু প্রতিদিন যে হারে অভিবাসীদের ভিড় বাড়ছে তাতে আরও অনেক লোক খাবার ছাড়াই থাকতে হচ্ছে। দেশটিতে মঙ্গলবার পর্যন্ত ‘রিক্যালিব্রেশন রিটার্ন’ প্রোগ্রামের অধীনে নিবন্ধন করেছে প্রায় ১ লাখ ১ হাজার ৬৯১ জন এবং ৮৩ হাজার ১১৭ জন ‘রিক্যালিব্রেশন রিটার্ন’ প্রোগ্রামের মাধ্যমে দেশে ফিরে গেছে।

এছাড়া ৫ জুলাই থেকে চলমান বিমানবন্দরের বিশেষ কাউন্টার সার্ভিসের মাধ্যমে গতকাল পর্যন্ত অন্তত ৩ হাজার ৮৪৩ জন অবৈধ অভিবাসী দেশে ফিরে গেছেন।
গত ৫ জুলাই থেকে কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে (কেএলআইএ) ৩টি স্টেশনে ২৪ ঘণ্টা চলা ‘রিক্যালিব্রেশন রিটার্ন’ কর্মসূচির বিশেষ কাউন্টার স্থাপন করা হয়। যাত্রীরা মাত্র ৫০০ রিঙ্গিত জরিমানা দিয়ে এয়ারপোর্ট থেকে সরাসরি নিজ নিজ দেশে ফিরতে পারবেন মালয়েশিয়ায় অবৈধভাবে থাকা প্রবাসীরা। বিমান টিকেটের সঙ্গে যাত্রীদের পাসপোর্ট অথবা ট্রাভেল পাস নিয়ে ফ্লাইটের অন্তত ছয় ঘণ্টা আগে ইমিগ্রেশন কাউন্টারে উপস্থিত থাকতে হবে। একই সাথে সব যাত্রীকে করোনাভাইরাস নেগেটিভ সার্টিফিকেট সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে।