ঢাকা, বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি, দুপুর ১২:১৮

ঈদের দিন ঝটপট তৈরি করুন মজাদার কুনাফা

ঈদে প্রতি বাসায় সেমাই বা লাচ্ছা সেমাই রান্না হবেই। এ ছাড়াও দুধ সেমাই, নারকেল সেমাই, দুধের লাচ্ছা, লাচ্ছার পোলাউ- ইত্যাদি হরেক রকম আয়োজন করা হয়। তবে সেমাই যদি একটু ভিন্নভাবে রান্না করা যায় তাহলে মন্দ কি! তথাকথিত সেমাই না করে একটু বেক করে রান্না করলেই হয়ে যাবে আরবের বিখ্যাত খাবার- কুনাফা। দারুণ এই খাবারটি ঝটপট বাড়িতেই তৈরি করে নিন।

উপকরণ:

লাচ্ছা সেমাইর প্যাকেট- ২টি বা কুনাফা সেমাই পরিমাণ মতো।
তরল দুধ- ২ কাপ।
ক্রিম বা মাখন- পরিমাণ মতো।
চিনি- ২/৩ কাপ বা পরিমাণ মতো।
কর্নফ্লাওয়ার- ২/৩ টেবিল-চামচ পানি দিয়ে গুলানো।
ঘি বা বাটার- ১/৩ কাপ বা যতটুকু প্রয়োজন।
চিনির সিরার জন্য– চিনি আধা কাপ। পানি ১ কাপ।
পদ্ধতি: প্রথমে দুধ, চিনি, কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। ঘন হয়ে আসলে নামিয়ে হালকা ঠাণ্ডা করে ক্রিম মিশিয়ে নিন। মনে রাখবেন ক্রিম পাতলা হলে কুনাফা বসবে না। একদম কাস্টার্ডের মতো ঘন করে ফেলতে হবে। ঠাণ্ডা করে রেখে দিন। সেমাইতে ঘি মেখে নিন। এমন পাত্রে নেবেন যেটাতে আর উল্টানোর প্রয়োজন পড়বে না। ন য়তো কুনাফা ভেঙে যাবে। এক্ষেত্রে কেক প্যান ভালো হয়। প্যানে হালকা ঘি ব্রাশ করে সেমাই বিছিয়ে চেপে চেপে সমান করে দিন।
ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ১০ থেকে ১৫ মিনিট গরম করুন। হালকা বাদামি হলে বের করে উপরে ঠাণ্ডা করা ক্রিম ঢেলে দিয়ে আরেক লেয়ার সেমাই দিন। এবার ওভেনে ১৮০ ডিগ্রিতে ২০ থেকে ২৫ মিনিট বেইক করুন। খেয়াল রাখতে হবে যেন পুড়ে না যায়।

উপরে হালকা বাদামি হলে আগে থেকে করে রাখা গরম চিনির সিরা ছড়িয়ে দিন। সব চিনির সিরা প্রয়োজন পড়বে না, তাই পরিমাণ মতো দিতে হবে। চিনির সিরা আর কুনাফা দুইটাই গরম থাকা অবস্থায় সিরা ঢেলে দেবেন। সাধারণ তাপমাত্রায় আসলে ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে কেটে পরিবেশন করুন মজাদার কুনাফা।
চুলায় করার পদ্ধতি:
চুলায় করতে চাইলে কেক তৈরির মতো নিচে তাওয়া দিয়ে তার উপর কুনাফার প্যান বসিয়ে দেবেন ঢাকনা দিয়ে। মাঝারি তাপে ২০ থেকে ২৫ মিনিটের মতো লাগতে পারে। খেয়াল করতে হবে- ক্রিমের মিক্সারে চিনি আছে আবার চিনির সিরাও দেবেন। তাই চিনি বেশি হলে কুনাফা খেতে ভালো লাগবে না। খেয়াল রাখতে হবে মিষ্টির পরিমাণ যেন বেশি হয়ে না যায়।