ঢাকা, বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি, দুপুর ১:০৫

‘৮০ শতাংশ মানুষ সংক্রমিত হবে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে’

দিনদিন ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে বৈশ্বিক মহামারি করোনা। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের নতুন নতুন ভ্যারিয়েন্টে ধরাশায়ী পুরো বিশ্ব। মৃত্যু ও শনাক্তের দিক দিয়ে অতীতের সমস্ত রেকর্ড ছাড়িয়েছে চলতি মাসে। গত ১৯ দিনেই কোভিড সংক্রমণের শিকার হয়েছে দুই লাখ মানুষ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নিকট ভবিষ্যতে করোনা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে চলেছে।

রাজধানীর মহাখালীতে ডিএনসিসির ডেডিকেটেড কোভিড হাসপাতালে দিনরাত ২৪ ঘণ্টাই আসছে-যাচ্ছে অ্যাম্বুলেন্স। চলছে অক্সিজেনের সিলিন্ডার নিয়ে দৌড়াদৌড়ি। শত লড়াইয়ের পরও ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কাছে হারতে হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

দেশে মোট শনাক্ত করোনা রোগী ১০ লাখ ছাড়িয়েছে গত ৯ জুলাই। আর ৯ লাখ থেকে ১০ লাখ হতে সময় লেগেছে মাত্র ১০ দিন। পরের ৯ দিনে শনাক্ত হয়েছে মোট ১ লাখ ৩ হাজার ৪৪৬ নতুন রোগী। অর্থাৎ গত ৯ দিনে শনাক্ত ছাড়িয়েছে ১ লাখের বেশি; এখন পর্যন্ত স্বল্প সময়ে শনাক্তের দিক দিয়ে যা সর্বোচ্চ।
শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. ফারুক আহমেদ বলেন রোগীর বাড়তি চাপ রয়েছে করোনা ইউনিটে।
আর জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. রিদওয়ানুর রহমান বলছেন, ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ বা তারও বেশি মানুষ আক্রান্ত হবে ডেল্টায়, এবং মৃত্যু ঘটতে পারে ধারনার চেয়ে বেশি। আরও কঠোর পদক্ষেপ না নিলে বিপর্যয় ঠেকানো সম্ভব হবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এদিকে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে লকডাউন শিথিল করা হলেও আগামী শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে আগামী ৫ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত আরও কঠোর লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে সরকার।

অন্যদিকে ঈদের পর বিধিনিষেধে অফিস বন্ধ থাকলেও সরকারি কর্মচারীদের নিজ নিজ কর্মস্থলে উপস্থিত থেকে মাঠ পর্যায়ে অর্পিত দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।
নির্দেশনায় বলা হয়, কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধে আগামী ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি অফিস বন্ধ ঘোষণাসহ বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। চিঠিতে বিধিনিষেধ আরোপকালীন সচিবদের অধীনস্থ বিভাগ, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের সব দপ্তরের সরকারি কর্মচারীকে কর্মস্থলে উপস্থিত থাকতে এবং তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করার প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।