ঢাকা, বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি, দুপুর ১২:৩৬

গ্রেট ব্যারিয়ার রিফকে বিশ্ব ঐতিহ্য থেকে বাদ দিবে ইউনেস্কো

অস্ট্রেলিয়ার গ্রেট ব্যারিয়ার রিফকে বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকা থেকে বাদ দিতে চায় জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা ইউনেস্কো। ইউনেস্কোর পরিবেশ গবেষণা কমিটি বলছে, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে উষ্ণায়নের জন্য বছরের পর বছর ধরে গ্রেট ব্যারিয়ার রিফ এর ক্ষতি হয়েছে। ১৯৯৫ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত অর্ধেক প্রবাল নষ্ট হয়ে গেছে। তাই তারা বিশ্ব হেরিটেজ তালিকায় এই রিফকে আর রাখতে চাইছে না। তারা এটিকে বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকা থেকে বাদ দিয়ে ‘ইন ডেঞ্জার’ তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করবে।

তবে ইউনেস্কোর এমন সিদ্ধান্ত মানতে রাজি নয় অস্ট্রেলিয়ার সরকার। তারা বলছে, এই রিফকে বাঁচিয়ে রাখতে কয়েকশ কোটি ডলার খরচ করা হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার পরিবেশমন্ত্রী সুসান লে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ইউনেস্কোর এমন সিদ্ধান্ত আমি মানতে পারছি না। বিশ্বের জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব এখনও গ্রেট ব্যারিয়ার রিফের উপর পরেনি। তাই এটিকে বিশ্ব ঐতিহ্য থেকে বাদ দেওয়া ঠিক হবে না।

আগামী জুলাই মাসে চীনে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থার ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে ইউনেস্কোর সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানাবে অস্ট্রেলিয়া। পরিবেশবিদরা মনে করেন, গ্রেট ব্যারিয়ার রিফকে হেরিটেজ তালিকা থেকে শেষ পর্যন্ত বাদ দেয়া হলে, সেটা হবে অস্ট্রেলিয়া সরকারের চরম ব্যর্থতা।

১৯৮১ সালে অস্ট্রেলিয়ার গ্রেট ব্যারিয়ার রিফকে বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে ইউনেস্কো। এরপর এ প্রবাল প্রাচীরটিকে নিয়ে ২০১৭ সাল থেকে ‘বিপদাপন্ন’ কি-না এ নিয়ে বিতর্ক চলছে। সূত্র: রয়টার্স ও বিবিসি