ঢাকা, সোমবার, ২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি, রাত ১০:১৫

জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে কী ভাবছে ভারত?

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু ও কাশ্মীরের ‘পুনর্গঠনের’ পর প্রথমবারের মতো রাজনৈতিক বৈঠক করতে যাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদি। যেখানে উপত্যকার ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনা করতে সেখানকার স্থানীয় রাজনৈতিক দলগুলিকে ডাকা হবে। এর আগে দীর্ঘদিন সেখানকার রাজনৈতিক নেতারা বন্দি ছিলেন। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, ২০১৯ সালের ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের চিত্রটা পুরো বদলে গিয়েছিল। এরপর প্রায় দুই বছর হতে চলল, তবে রাজ্যের মর্যাদা ফিরে পায়নি জম্মু-কাশ্মীর। এই আবহে আগামী সপ্তাহে উপত্যকা নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠকের ডাক দেবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের সঙ্গে রাজনৈতিক দলগুলি বৈঠকে বসে কী আলোচনা করবে, সেদিকে তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল। যদিও বৈঠকের নির্দিষ্ট তারিখ এখনও জানা যায়নি। তবে আগামী সপ্তাহে এই বৈঠক হবে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে আরও বলা হয়, কাশ্মীর ইস্যুতে শুক্রবার একটি বৈঠক করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এরপরই ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর দফতরের পক্ষ থেকে এই বৈঠকের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়।

এদিকে শুক্রবার অমিত শাহের ডাকা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জম্মু ও কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর মনোজ সিনহা, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল সহ উচ্চপদস্থ আধিকারিক এবং আমলারা। সেই বৈঠকের পর অমিত শাহের দফতরের তরফে বলা হয় কাশ্মীরের সার্বিক উন্নয়নই কেন্দ্রের অগ্রাধিকার। এদিকে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় কাশ্মীর প্রশাসনের দক্ষতাকে স্বাগত জানান অমিত শাহ। মনোজ সিনহাকে এই বিষয়ে শুভেচ্ছা জানান শাহ।