ঢাকা, সোমবার, ২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি, রাত ৮:৪৫

‘কোভিড ট্যাবলেট’ আনছে যুক্তরাষ্ট্র

ভাইরাস প্রতিরোধী এই ওষুধ আবিষ্কার হলে সংকটাপন্ন রোগীর মৃত্যু ঠেকানো সম্ভব হবে বলে মনে করেন তিনি। এ ছাড়া ঘরেই সেবনযোগ্য হওয়ায় জীবন বাঁচানোর শক্তিশালী এক অস্ত্র হয়ে উঠবে কোভিড ট্যাবলেট।

করোনার প্রতিষেধক আবিষ্কার হলেও কার্যকর ট্যাবলেট উদ্ভাবনে কাজ করে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। ট্যাবলেট আবিষ্কারে এরই মধ্যে ৩০০ কোটি ডলার খরচের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শিগগিরই মুখে সেবনযোগ্য ট্যাবলেট আবিষ্কারের আশা করছেন গবেষকরা। খবর নিউইয়র্ক টাইমসের।
ওষুধ আবিষ্কারে গবেষণা ও উন্নয়নের গতি বাড়ানোর লক্ষ্যেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ।
বাইডেনের প্রধান চিকিৎসা উপদেষ্টা ও মার্কিন শীর্ষ সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউসি জানিয়েছেন, সেবনযোগ্য করোনার ওষুধের গবেষণা ও পরীক্ষায় ক্লিনিকাল ট্রায়াল চালাতে এই অর্থ ব্যয় হবে।
ভাইরাস প্রতিরোধী এই ওষুধ আবিষ্কার হলে সংকটাপন্ন রোগীর মৃত্যু ঠেকানো সম্ভব হবে বলে মনে করেন তিনি। এ ছাড়া ঘরেই সেবনযোগ্য হওয়ায় জীবন বাঁচানোর শক্তিশালী এক অস্ত্র হয়ে উঠবে কোভিড ট্যাবলেট।
৩০০ কোটি ডলারের মধ্যে ৩০ কোটি ডলার গবেষণার কাজে ব্যয় করা হবে। প্রায় ১০০ কোটি ডলার থাকবে ‘প্রি-ক্লিনিক্যাল’ এবং ‘ক্লিনিক্যাল’ পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ব্যবহারের জন্য।
ওষুধ তৈরি ও উন্নয়নে খরচ হবে ৭০ কোটি ডলার। ওষুধ উদ্ভাবনের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে ১২০ কোটি ডলার।