ঢাকা, শনিবার, ১৯শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি, রাত ১০:২১

অলিম্পিক ঘিরে ভারত-চীন দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

জাপানের টোকিও শহরে আগামী ২৩ জুলাই থেকে অলিম্পিক গেমসের আসর বসছে, চলবে ৮ আগস্ট পর্যন্ত। অলিম্পিককে সামনে রেখে ভারতীয় অ্যাথলেটদের পোশাক তৈরির দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে ক্রীড়া সরঞ্জাম প্রস্তুতকারী চীনা সংস্থা লি নিংকে।

ইন্ডিয়ান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (আইওএ) সভাপতি ডক্টর নরিন্দর ধ্রুব বাত্রা এবং সেক্রেটারি-জেনারেল রাজীব মেহতা এ সংক্রান্ত বিবৃতি প্রকাশ করেছেন।

এদিকে বুধবার (৯ জুন) রাতে ভারতের কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেণ রিজিজু অ্যাথলেটদের পোশাক নিয়ে টুইটারে লেখেন, টোকিও অলিম্পিকে ভারতের অ্যাথলেট, কোচ এবং সাপোর্ট স্টাফরা কোনো ব্র্যান্ডেড পোশাক পরবে না। আমাদের অ্যাথলেটদের কিটে শুধু ‘ইন্ডিয়া’ লেখা থাকবে।

অন্যদিকে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়্যাং ওয়েনবিন ভারতকে বিষয়টি নিয়ে রাজনীতি করতে না বলেছেন।

ওয়্যাং ওয়েনবিন বলেন, ‘আমরা আশা করব দু’দেশের পারস্পরিক সহায়তার স্বাভাবিক বিষয়টির রাজনীতিকরণ না করে ভারত সেটাকে বস্তুনিষ্ঠ এবং নিরপেক্ষভাবে দেখবে। আর যদি নির্দিষ্ট কোনো বাণিজ্যিক চুক্তির বিষয়ে বলা হয়, তবে আমি সেই বিষয়ে কিছু জানি না।’

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ সময় ধরে ভারতের সঙ্গে চীনের আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে নানা বিষয়ে বিরোধ লেগেই রয়েছে। গত বছর পূর্ব লাদাখে দু’দেশের সেনাবাহিনীর আমনা-সামনা হওয়ার পর পরিস্থিতি এতটাই খারাপ হয়ে যায় যে, একাধিক চীনা সংস্থার ওপর নিষেধাজ্ঞাও জারি করার পাশাপাশি ভারতের জনগণকে চীনা সরঞ্জাম বয়কট করার কথা বলা হয়। এই কারণেই গত বছর চীনা মোবাইল প্রস্তুতকারী সংস্থার সঙ্গে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) স্পনসরশিপের ৪৪০ কোটি রুপি বার্ষিক চুক্তিও স্থগিত রেখেছিল ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (বিসিসিআই)। যদিও এই বছর আবার আইপিএলের স্পনসর হিসেবে ফিরে এসেছে সংস্থাটি।

সূত্র: কলকাতা ২৪ ঘণ্টা