ঢাকা, শনিবার, ১৯শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি, রাত ৯:৩৫

ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন নুসরাত

চলচ্চিত্রের চেয়ে কম রঙিন না সাংসদ-অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের জীবন। সম্প্রতি নায়িকাকে নিয়ে তোলপাড় বিনোদন পাড়া। টলিউড অভিনেত্রীর মা হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই উত্তাল অন্তর্জাল। সেই আগুনে ঘি ঢাললেন নুসরাত নিজেই। নিখিল জৈনের সঙ্গে তার সম্পর্কের নাম পাল্টে ফেললেন তিনি। নিখিলের বিরুদ্ধে রীতিমতো যুদ্ধ ঘোষণা করলেন নুসরাত।

নুসরাত আর নিখিলের বিয়ের দুই বছর পূর্ণ হতে বাকি আর কয়েকটা দিন। আগামী ১৯ জুন তাদের বিয়ের দুই বছর পূর্ণ হতে যাচ্ছে। কিন্তু গত কয়েক মাসে একসময়ের স্বপ্নের জুটির সম্পর্কের সমীকরণটা পুরোপুরি বদলে গেছে। ৬ মাস ধরে আলাদা নিখিল-নুসরাত।

তবে খুব শিগগিরই আবার দেখা হচ্ছে দু’জনের। অবশ্য সেই সাক্ষাৎ আর খুব সুখকর হবে না। কারণ দীর্ঘ দিনের বিচ্ছেদের পর এবার সোজা আলিপুর আদালতে মুখোমুখি হবেন তারা।

নুসরাত বলেন, নিখিলের সঙ্গে আমি একসঙ্গে থেকেছি। এটা বিয়ে না। ফলে বিয়ে-বিচ্ছেদের প্রশ্নই ওঠে না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নিখিল ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে সাফ বলে দেন, আদালতে দেখা হবে।

২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের প্রার্থী হন নুসরাত। নির্বাচনে জিতে বসিরহাটের এমপি হন। সেই বছর জুন মাসের ১৯ তারিখ তার বিয়ে হয় ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে। এর আগে তাদের প্রেমের কথা খুব বেশি চাউর হয়নি। তবে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। তুরস্কে গিয়ে বিয়ে সারেন অভিনেত্রী। জানা যায়, তারা আগে থেকেই ভাল বন্ধু ছিলেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিয়ের কয়েক মাস পরেই নুসরাতকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল। একসঙ্গে অনেক ওষুধ খেয়ে নেওয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। সম্ভবত ঘুমের ওষুধ খেয়েছিলেন নুসরাত। প্রাথমিকভাবে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়। ফুলবাগান থানায় তার ‘ড্রাগ ওভারডোজ’ নিয়ে রিপোর্টও করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। সেখান থেকে গুঞ্জন রটে, আত্মহত্যা করার চেষ্টা করছিলেন অভিনেত্রী। তবে ঘুমের ওষুধ খেয়ে অসুস্থতার কথা ‘সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন’ বলে উড়িয়ে দেয় নুসরাতের পরিবার।

২০২০ সালে ‘এসওএস কলকাতা’ ছবির শুটিং নুসরাতের জীবনে মোড় ঘুরিয়ে দেয়। সেই ছবির সেটেই অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের প্রেমে পড়েন নুসরাত। এর আগে ২০১৭ সালে ‘ওয়ান’ ছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে বন্ধুত্ব হয়েছিল দু’জনের। তাদের প্রেমের কাহিনি ধীরে ধীরে প্রকাশ্যে আনতেও শুরু করেন তারা।