ঢাকা, শনিবার, ১৯শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি, রাত ৯:৩৫

সংজ্ঞাহীন যুবককে তুলে দেয়া হয় গ্রীনলাইনে

ওয়াটার ভেসেল এমভি গ্রীনলাইন থেকে নামিয়ে রনি সরদার নামের এক যাত্রীকে প্রকাশ্যে মারধর করার পর সংজ্ঞাহীন অবস্থায় পুনরায় গ্রীনলাইনে তুলে দিয়েছে হামলাকারীরা। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার উলানিয়া ইউনিয়নের কালিগঞ্জ লঞ্চঘাট পল্টুনে।
হামলায় গুরুত্বর আহত যুবক রনি সরদার (২৮) উপজেলার উলানিয়া এলাকার বাসিন্দা। এদিকে প্রকাশ্যে মারধরের ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলেও অভিযোগের অজুহাতে এ বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ নিচ্ছেনা পুলিশ।
বুধবার দিবাগত রাতে হামলার সত্যতা নিশ্চিত করে গ্রীন লাইন-২ এর ব্যবস্থাপক বাদশা সরদার বলেন, ওইদিন বিকেল তিনটার দিকে গ্রীন লাইন-২ নামের ওয়াটার ভেসেল কালিগঞ্জ লঞ্চঘাটে নোঙর করে যাত্রী তুলছিল। এ সময় অন্য যাত্রীদের ন্যায় ওই নদী বন্দর থেকে নৌযানে ওঠেন রনি সরদার। এ সময় ১০/১২ জনের একদল লোক এসে রনি সরদারকে জোরপূর্বক সিট থেকে তুলে পল্টুনে নিয়ে বেধম মারধর করে। একপর্যায়ে রনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলায় হামলাকারীরা তাকে হাতে হাতে ধরে গ্রীন লাইনে তুলে দিয়ে চলে যায়।
ব্যবস্থাপক বাদশা সরদার আরও বলেন, গুরুত্বর আহত রনিকে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করে ঢাকায় এনে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত রনি সরদার জানিয়েছেন, স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলের দুটি পক্ষের বিরোধকে কেন্দ্র করেই এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। রনি সরদার নিজেও একটি পক্ষের লোক হিসেবে পরিচিত। ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তাদের দুইগ্রুপের মধ্যে চলমান বিরোধকে কেন্দ্র করে এ হামলা হয়েছে বলেও রনি জানিয়েছেন।
বৃহস্পতিবার সকালে মেহেন্দিগঞ্জ থানার ওসি আবুল কালাম জানান, মারধরের খবর তারা পেয়েছেন। তবে এ ঘটনায় কেউ থানায় অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।