ঢাকা, রবিবার, ১৬ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩রা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি, দুপুর ১২:৫৩

মে দিবসে জার্মানিতে বিক্ষোভ-সংঘর্ষ

জার্মানিতেও মে দিবসে বিক্ষোভ, সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও মানবাধিকার সংগঠনগুলোর কর্মসূচি ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে ছিল নিরাপত্তা বাহিনী।

সড়কে ব্যারিকেড, জ্বালাও পোড়াও, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়াসহ অনুমোদনহীন আতশবাজি পোড়ানো ও আইনশৃংখলা রক্ষাবাহিনীকে লক্ষ্য করে পাথর ও বোতল নিক্ষেপসহ নানা ঘটনার মধ্য দিয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত জার্মানিতেও পালন করা হয় আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস। এদিন জার্মানির বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের কর্মসূচি ঠেকাতে মোতায়েন করা হয় বিপুল সংখ্যক পুলিশ। বার্লিনেও কঠোর অবস্থানে ছিল নিরাপত্তা বাহিনী।

বিক্ষোভে আসা একজন বলেন, এতটুকুই বলব, আজ আন্তর্জাতিক শ্রমিকদের জন্য বিশেষ একটা দিন। তাদের অধিকার রক্ষাসহ নানা অসংগতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতেই আজ আমরা রাস্তায় নেমেছি। একই সঙ্গে বড় বড় ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানসহ আবাসন প্রকল্পগুলো যাতে সাধারণ নাগরিকদের মধ্যে সুষম বন্টন হয় তাও জানিয়ে দিতে আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়েছি।

অপর একজন বলেন, চশমা পড়া কালো মাস্ক আমি একজন সাধারণ কর্মী, বেঁচে থাকার জন্য আমাকে কমপক্ষে তিনটি চাকরি করতে হয়। এটা অনেক অমানবিক। এখানে যারা এসছে তারা অনেকেই আমার মতো খুব কষ্টে জীবনধারণ করছে। আমরা সকলেই সহমর্মী।

বার্লিনের নয়াকোলনে সমাবেশের এক পর্যায়ে আন্দোলকারীদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক ধ্বস্তাধস্তি হয়। এতে তিন পুলিশ সদস্যসহ বেশ কয়েকজন আহত হন। তবুও আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী শ্রমের ন্যায্য মূল্য পেতে অনড় ছিলেন সমাবেশকারীরা।

সমাবেশে অংশ নেওয়া এক নারী বলেন, দেখুন কোনো উপায় নাই, এখনো কর্মক্ষেত্রে নারী-পুরুষের আয়ে ব্যাপক বৈষম্য দেখতে পাচ্ছি। কাজ করে মাসে যা আয় করি তাতে বাসা ভাড়া দিতেই হিমশিম খেতে হয়। এই সমস্যা আন্তর্জাতিক।

এদিক পুলিশের সঙ্গে আন্দোলকারীদের সংঘর্ষ হলেও বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আগেই সমাবেশ পণ্ড করে দেয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১