শুক্রবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, সকাল ৬:০৭

তেলিগাতী বাইপাসে অনুমতি না নিয়ে সরকারি গাছ কর্তন

জিয়াউল ইসলামঃ ব্যুরো প্রধান খুলনাঃ

নগরীর আড়ংঘাটা থানাধিন তেলীগাতি বাইপাস সড়ের পাশ থেকে সরকারি খৈয়ে বাবলা ও শিরিজ গাছ কাটার অভিযোগ পাওয়া গেছে বিশিষ্ট ব্যাংকার জাহিদ ইকবালের বিরুদ্ধে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত জাহিদ ইকবাল এবং আড়ংঘাটা থানার অফিসার্স ইনচার্জ পাল্টাপাল্টি বক্তৃব্য দিয়েছে।স্থানীয়রা জানিয়েছেন শুক্রবার সকালে জাহিদ ইকবাল লোকজন নিয়ে তেলিগাতী বাইপাস সড়কের বিএম কলেজ সংলগ্ন রাস্তার পাশের সরকারি পুরাতন খৈয়ে বাবলা, শিরিজ গাছ এবং গাছের ডালপালা কাটতে থাকে । রাস্তার পাশে একটি বড় খৈয়া বাবলা গাছের গোড়া থেকে এবং শিরিজ গাছের ডালপালা কেটে নিয়ে যায়। সরকারি গাছ কাটার খবর পেয়ে স্থানিয় সাংবাদিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে গাছ কাটা বন্ধ করে দিয়ে ভ্যান যোগে গাছ গুলো সরিয়ে ফেলে। এ সময় উপস্থিত সাংবাদিকরা গাছ কাটার অনুমতি দাতা জাহিদ ইকবালের কাছে গাছ কাটার কারণ জানতে জাইলে তিনি বলেন এখানে একটি পুলিশ বক্স নির্মাণ করা হবে এ জন্য গাছ কাটা হয়েছে। সরকারি গাছ বন বিভাগের অনুমতি না নিয়ে কেন গাছ কাটলেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং প্রশাসনের সাথে আলোচনা করে গাছ কাটা হয়েছে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত আড়ংঘাটা থানার অফিসার্স ইনচার্জ রেজাউল করিম বলেন আমি খবর পেয়ে এখানে এসেছি। আমি কাউকে গাছ কেটে পুলিশ বক্স নির্মাণের অনুমতি দেয়নি। তিনি বলেন আমি সরেজমিনে দেখে গেলাম গাছ কাটার ব্যাপারে কেহ যদি লিখিত অভিযোগ দেন তাহলে আমরা আইনানুক ব্যবস্থা গ্রহন করবো। ফুলতলা উপজেলা বন কর্মকর্তা জহির উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের বলেন গাছের মুল অংশ সরিয়ে ফেলা হয়েছে। গাছের ডালপালা দেখে গেলাম। এ ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসনের সাথে আলোচনা হয়েছে। মিছিং গাছ গুলো উদ্ধারের পর উর্ধতন কর্মকর্তার সাথে আলোচনা করে যারা এর সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।