বৃহস্পতিবার, ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ ইং, ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ভোর ৫:২৩
কুড়িগ্রাম খাদ্য বিভাগে বস্তা ক্রয়ে দুর্নীতি ৭ কর্মকর্তা প্রত্যাহার বানারীপাড়ায় প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধার সম্পত্তি জবরদখলের পায়তারা বিশ্ব নবী (সাঃ) কে অবমাননা করার প্রতিবাদে কলাপাড়ায় বিক্ষোভ সমাবেশ সাংবাদিক ফোরামের চরফ্যাশনে কমিটি গঠন সভাপতি মামুন- সম্পাদক মিজান করোনাকালে ১০ লাখের অধিক দুস্থ ও অসহায়কে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে: সিটি মেয়র উলিপুরে মেয়রের বাসা থেকে পরিচ্ছন্নকর্মীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার ভোলায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চারজনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ বানারীপাড়ার কুরআন শিক্ষক হাফেজ       মাওলানা আনোয়ার হুজুর আর নেই আরও ৩০ ব্যক্তির মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিল ১ নভেম্বর থেকে মাধ্যমিকের ৩০ দিনের সিলেবাস বাস্তবায়ন শুরু

মাথাপিছু জিডিপিতে ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে বাংলাদেশ

   অনলাইন ডেস্ক।

২০২১ সালে মাথাপিছু মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) বাংলাদেশ ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)।

আইএমএফের ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক আউটলুকের (ডব্লিউইও) তথ্য অনুযায়ী, ডলারের হিসাবে বাংলাদেশের মাথাপিছু জিডিপি ২০২০ সালে এক হাজার ৮৮৮ ডলার হয়ে ৪ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে বলে মনে করা হচ্ছে। অন্যদিকে ভারতের মাথাপিছু জিডিপি ১০.৫ শতাংশ কমে ১ হাজার ৮৭৭ ডলারে নেমে যাওয়ার শঙ্কায় রয়েছে, যা গত চার বছরে সর্বনিম্ন হবে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইকোনোমিকস টাইমস ও বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড জানিয়েছে, করোনার ধাক্কায় ভারত দক্ষিণ এশিয়ায় তৃতীয় গরিব দেশ হচ্ছে। দেশটি থেকে কেবল পিছিয়ে থাকছে নেপাল এবং পাকিস্তান।

এদিকে বাংলাদেশ, ভুটান, শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপ ভারতের চেয়ে এগিয়ে থাকবে।

ডব্লিউইও প্রতিবেদন অনুযায়ী, শ্রীলঙ্কার পরে দক্ষিণ এশিয়ায় করোনা মহামারীতে ভারতীয় অর্থনীতি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে, দেশটির মাথাপিছু জিডিপি বর্তমান পঞ্জিকা বছরে ৪ শতাংশ সংকুচিত হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রতিবেদনে নেপাল ও ভুটান এ বছর তাদের অর্থনীতি বৃদ্ধি করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আইএমএফ আগামী বছরে ভারতে ব্যাপক অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের পূর্বাভাস দিয়েছে।

আইএমএফের পরিসংখ্যানে ২০২১ সালে আবার ভারতের অগ্রগতির পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। ওই সময়ে বাংলাদেশের চেয়ে অল্প ব্যবধানে এগিয়ে থাকতে পারে প্রতিবেশী দেশটি।

২০২১ সালে ভারতের মাথাপিছু জিডিপি ৮.২ শতাংশ অগ্রগতি হয়ে ২ হাজার ৩০ ডলারে দাঁড়াতে পারে। বিপরীতে বাংলাদেশের অগ্রগতি হতে পারে ৫.৪ শতাংশ বা ১ হাজার ৯৯০ ডলার।

পাঁচ বছর আগেও ভারতের মাথাপিছু জিডিপি বাংলাদেশের চেয়ে প্রায় ৪০ শতাংশ বেশি ছিল।